Breaking News
Home / Health Tips / মেয়েদের যৌন চাহিদা কখন বেশি থাকে ? মেয়েরা কখন যৌন উত্তেজনায় পাগল হয়ে ওঠে ?
মেয়েদের যৌন চাহিদা কখন বেশি থাকে
মেয়েদের যৌন চাহিদা কখন বেশি থাকে

মেয়েদের যৌন চাহিদা কখন বেশি থাকে ? মেয়েরা কখন যৌন উত্তেজনায় পাগল হয়ে ওঠে ?

মেয়েদের যৌন চাহিদা কখন বেশি থাকে ? মেয়েরা কখন যৌন উত্তেজনায় পাগল হয়ে ওঠে ?

নারীর ৬টি যৌন ফ্যান্টাসি! জেনে নিন…

অনেকের ভ্রান্ত ধারণা, যৌন কল্পনা নাকি খুব খারাপ বিষয়। এই নিয়ে খোলাখুলি আলোচনাও নাকি খারাপ। কেউ কেউ আবার মনে করেন, এ হল বিকৃত মস্তিষ্কের কুৎসিত খেয়াল। যদিও বিশেষজ্ঞদের মত উলটো। তাঁরা আবার অভয় দিয়ে বলেন, যৌনতা নিয়ে ফ্যান্টাসি একেবারেই খারাপ বিষয় নয়। এ হল সুস্থতারই লক্ষণ।

কিন্তু সমস্যার বিষয় হল অন্য। আমাদের সমাজে যৌনতা নিয়ে এখনও ঢাকঢাক গুড়গুড় আছে। এদিকে আড়ালে চলে সবই। কেবল আলোচনার বেলাতেই লজ্জায় মুখ লাল। যেন যৌনতা একটা পাপ! অগত্যা কার কেমন যৌন কল্পনা, সে নিয়ে গবেষণা বহু দূরের টপিক। তবে এ কথা সত্য, যৌনতা নিয়ে কল্পনা করেন নারীপুরুষ উভয়পক্ষই।

এতকাল ধারণা ছিল, যৌনতার ক্ষেত্রে পুরুষ সর্বশক্তিমান। নারীও তেজি, তবে পুরুষের সমান কখনওই নন। কিন্তু দিন যত পালটেছে নারীও শক্তিরূপিণী হয়েছেন। তাঁর গোপন কল্পনাগুলো আরও বড় রূপ ধারণ করেছে। হয়েছে আরও বেশি উন্মুক্ত। নারীর সেই সব যৌন কল্পনাগুলোই জানিয়ে রাখি চুপিচুপি। বেজায় জটিল নারীকে বুঝতে একটু হলেও সুবিধে হবে!

1. স্যান্ডউইচ স্টাইল
– কোনও কোনও নারীর একজন পুরুষে ক্রিয়া সমাপ্ত হয় না। একই সঙ্গে একাধিক পুরুষের প্রয়োজন হয়। কিন্তু বাস্তবে সবক্ষেত্রে তা সম্ভব নয়। ফলে কল্পনাই সই। ফ্যান্টাসির জগতে কিছু সংখ্যক নারীকে সঙ্গ দেয় একের অধিক পুরুষ।

2. রোল বদল
– যৌনসুখে বিভোর কোনও কোনও নারী পুরুষকে নানা রূপে কল্পনা করতে ভালোবাসেন। সঙ্গীর পরিবর্তে এমন কোনও ব্যক্তিকে তিনি কল্পনা করেন, যাঁর সঙ্গে বাস্তবে যৌনমিলন করায় বাধা আছে। মোদ্দা কথা হল, সেই সব নারী সেক্স করার সময় পরপুরুষের কথাই চিন্তা করে সুখ খুঁজে পান। হতে পারে সেই ব্যক্তি খুব ঘনিষ্ঠ মহলের কেউ – প্রেমিকের বন্ধু বা দেওর, ভাইয়ের বন্ধু, বান্ধবীর প্রেমিক/স্বামী, কলেজের প্রফেসর, কলিগ, ছোটোবেলার ক্রাশ বা সুপ্ত কোনও লাভার।

3. টু পিস ও উষ্ণতা
– আলুথালু চেহারার রমণীও এমন কল্পনা করেন মনে মনে। সুদীর্ঘ সোনালি বালুতটের উপর দিয়ে তিনি টু পিস পরে দৌড়ে এসে জাপটে ধরেন সঙ্গীকে। সমুদ্রের ঢেউ স্পর্শ করে যায় তাঁদের অর্ধনগ্ন শরীর।

4. রোম্যান্টিকতা
– আবেগপ্রবণ রমণীর ক্ষেত্রে রোম্যান্সটাই প্রথম কথা এবং সেটাই শেষ কথা। কল্পনার জগৎ জুড়ে ছেয়ে থাকে দারুণ সুসজ্জিত কোনও শোওয়ার ঘর, সুগন্ধি ক্যান্ডেল ও ঘরের লাগোয়া কোনও বাথটাব। টাব ভর্তি গোলাপের পাপড়ি। সেই আবহে রতিলীলায় মত্ত দুটি মন, দুটি প্রাণ। অনেকটা হিন্দি সিনেমার গানের দৃশ্যের মতোই মাখোমাখো ব্যাপার।

5. আমার সঙ্গী আজ তোমার হল
– কোনও কোনও নারী কিন্তু তাঁর কল্পনার দুনিয়ায় অনেক বেশি উদার। ফ্যান্টাসির দোহাইতেই তিনি সঙ্গীকে অন্য কারোর সঙ্গে মিলিত হতে অনুমতি দেন। এবং মনে করেন সেই দৃশ্য তিনি বসে বসে দেখছেন। তাতে নাকি অদ্ভুত উত্তেজনা হয় শরীরে।

6. আগন্তুকের সঙ্গে সহবাস
– নারী কল্পনার আরও একটি আশ্চর্য বিষয় হল, তিনি কোনও আগন্তুক বা অপরিচিত ব্যক্তির সঙ্গে নিজেকে কল্পনা করতে ভালোবাসেন। বাসে, ট্রামে, ট্রেনে – যে পুরুষটিকে মনে ধরে খানিকক্ষণ, মনে মনে কল্পনা করে নেন আশ মিটিয়ে।

Loading...

About admin

Check Also

কি খেলে ছেলেরা সারাজীবণ ২৫ বছরের যুবকের মত থাকবে —– শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন

সেক্স বাড়ানো জন্য যৌন শক্তি বর্ধক ট্যাবলেট খাবেন না। এই ঔষধ পুরুষকে ধ্বজভংগ রোগের দিকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *